Online Earning

ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সঠিক উপায় 2022 [দেখুন ও জানুন এখানে]

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় ২০২২ [দেখুন ও জানুন এখানে]

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সঠিক উপায়

ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সঠিক উপায় 2022 [দেখুন ও জানুন এখানে] । আসসালামুয়ালাইকুম সকলের সুস্বাস্থ্য এবং সুন্দর জীবন কামনা করে শুরু করছি আজকের পোস্টটি । আপনি কি আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে ইনকাম করতে চান? তাহলে আপনি একদম সঠিক স্থানে এসে উপস্থিত হয়েছেন । কেননা আমরা আপনাদের সাথে শেয়ার করব ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে কিভাবে টাকা ইনকাম করার উপায় ।  যার কারণে এই পোস্টটি একদম শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে দেখবেন এবং করবেন এ থেকে আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে খুব সহজেই অনলাইন থেকে ইনকাম করার সোর্স জানতে পারবেন ।

At a glance

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় কিভাবে করবেন?

বর্তমান ইন্টারনেটের যুগে সকল কাজকর্ম ইন্টারনেটের মাধ্যমে হয়ে থাকে যার কারণে আপনি আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোন দিয়ে আয় করতে পারেন ইন্টারনেটে কাজ করার মাধ্যমে । যার কারনে আপনার মোবাইল ফোন বা স্মার্টফোনে থাকতে হবে ইন্টারনেট সংযোগ এরপর নির্দিষ্ট কিছু নিয়ম কানুন ফলো করে আপনাকে কাজ করতে হবে তাহলে আপনি মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন ।

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করতে যা প্রয়োজন?

মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করতে প্রথমেই প্রয়োজন আপনার ইন্টারনেট সংযোগ । এরপর প্রয়োজন আপনি নির্দিষ্ট কোন টপিক সিলেক্ট করা । কারণ নির্দিষ্ট একটি টপিক সিলেক্ট করে তার ওপর আপনাকে নিয়মিত কাজ করে যেতে হবে । নিয়মিত কাজ করে গেলে আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে খুব সহজে আয় করতে পারবেন । নিচে মোবাইল দিয়ে কিভাবে ইনকাম করবেন তার ২০ টি উপায় তুলে ধরা হলো ।

ব্লগিং (Blogging) করে টাকা আয়

প্রতিনিয়ত ইন্টারনেটে লিখালিখির বা ব্লগিং এর চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে । যার কারনে ব্লগিং একটা খুব ভালো মার্কেটপ্লেস হতে পারে । যার কারনে আপনার প্রথমে প্রয়োজন একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং । এখান থেকে আপনি নিজস্ব একটি ওয়েবসাইট খুলে লেখালেখি করার মাধ্যমে ব্লগিং করে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন । এজন্য প্রথমে আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস  বা ব্লগার এ আপনার ডোমেইন এবং হোস্টিং কেনার পর একটি সাইট খুলতে হবে । নির্দিষ্ট একটি নিশ সিলেক্ট করে সেখানে প্রতিনিয়ত আপনার কনটেন্ট দিয়ে যেতে হবে । কারণ নির্দিষ্ট একটি নিশ / টপিকের উপর কন্টেন্ট ক্রিয়েট করে গেলে গুগোল আপনার ওয়েবসাইটকে রাঙ্ক দিবে । যার ফলে আপনি এডসেন্স মনিটাইজেশন করে ইনকাম করতে পারবেন । এছাড়াও আপনি ব্লগিং থেকে এডসেন্স এর পাশাপাশি স্পন্সরের মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন ।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে আয়

ইউটিউব থেকে খুব সহজেই আপনি আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে ভিডিও তৈরি তৈরি করে আয় করতে পারেন । যার জন্য প্রথমে আপনাকে ইউটিউবে একটি চ্যানেল খুলতে হবে । সেখানে আপনার পছন্দ অনুযায়ী কনটেন্ট/ ভিডিও তৈরি করে আপলোড করতে হবে প্রতিনিয়ত । এরপর আপনার চ্যানেল যখন মনিটাইজেশন পাবে তখন আপনি এডসেন্সের মাধ্যমে এবং অন্যান্য স্পন্সর এর মাধ্যমে ইনকাম করতে পারবেন । তবে youtube-এ মনিটাইজেশন পেতে হলে আপনাকে ইউটিউব এর কিছু শর্ত পূরণ করতে হবে । যেখানে আপনাকে শর্ত হিসেবে শেষ ৩৫৬ দিন তথা এক বছরের মধ্যে ২০০০ স্ক্রাইবার এবং ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ করতে হবে ।

মোবাইল দিয়ে টাকা আয় বিকাশে পেমেন্ট app

এখন অনলাইনের মাধ্যমে অনেক অফিস সহ বিভিন্ন জনে বিভিন্ন কাজ করে নেয় অনলাইন থেকে । যেখানে চাইলে আপনিও সহযোগিতা করতে পারেন । আপনার হাতে থাকা মোবাইল ফোন দিয়ে সেই কাজগুলো করে দিয়ে । সহজেই বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট গ্রহন করতে পারেন । অর্থাৎ এমন কোন একটি কাজ যেটা আপনি কাউকে করে দিবেন । সে আপনাকে বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করবে । নিচে সেই কাজগুলোর লিস্ট দেয়া হল ।

কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়

এখন অনেকগুলো সফটওয়্যার রয়েছে যেগুলোতে কাজ করার মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন । তবে বর্তমানে আমাদের দেশ অর্থাৎ বাংলাদেশে এমন কোন সফটওয়্যার বাজারে পাওয়া যায় না বা ছাড়া হয়নি । যার কারনে আপনি কোন ধরনের সফটওয়্যার এর কাজ করে মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন না । তবে হ্যা আপনি যদি আপনার নির্দিষ্ট কোন মাধ্যমে কোন সফটওয়্যার দিয়ে কাজ করতে পারেন তাহলে টাকা ইনকাম করা সম্ভব ।

ফ্রি টাকা ইনকাম

আমরা অনেকেই ফ্রি টাকা ইনকামের কথা চিন্তা করে থাকি । কিন্তু পৃথিবীতে ফ্রি, ফ্রি কিছু পাওয়া যায় না সেটা টাকায় হোক বা অন্যান্য কিছু । তার কারণে এ ধরনের চিন্তাভাবনা থেকে বেরিয়ে আসুন । এবং আপনি আপনার পারদর্শিতা আছে এমন কোনো কাজে মনোযোগ দিন ।

টাকা ইনকাম করার উপায় মোবাইল অ্যাপস দিয়ে

বর্তমানে গুগল প্লে স্টোর এবং অ্যাপেল প্লেস্টোরে অনেকগুলো অ্যাপস রয়েছে । যার মাধ্যমে মোবাইল দিয়ে কাজ করে টাকা ইনকাম করা যায় । কিন্তু সেই অ্যাপস গুলো বিশ্বাসযোগ্য নয় । যার কারণে উক্ত মাধ্যমে অর্থাৎ মোবাইলের মাধ্যমে অ্যাপস দিয়ে কাজ করে আপনি উল্লেখযোগ্যহারে টাকা ইনকাম করতে পারবেন না । তারপরেও আমরা নিচে কিছু অ্যাপস এর নাম শেয়ার করলাম যার মাধ্যমে আপনি মোবাইল দিয়ে অ্যাপস এর কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন । পকেট মানি, পোল পে, গুগল অপিনিওন রিওয়ার্ড, গুগল kormo অ্যাপস ।

টাকা ইনকাম করার অ্যাপ বাংলাদেশ

বাংলাদেশে এমন কোন মোবাইল অ্যাপস নেই । যা দিয়ে আপনি কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারেন । তাই আমরা অযথা আপনাকে ভুলভাল কোন তথ্য শেয়ার করতে চায় না । যাতে করে আপনারা আপনাদের মূল্যবান সময় নষ্ট হয়  ।

ক্যাপচা টাইপিং করে আয় করুন

অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে যেখানে আপনি শুধুমাত্র ক্যাপচা কোডটি সলভ করে ইনকাম করতে পারবেন । যেখানে আপনার ফী সময়ে উক্ত ওয়েবসাইট গুলো ভিজিট করবেন এবং সেখানে আপনার অ্যাকাউন্ট খুলে ক্যাপচা কোড সলভ করে খুব সহজেই মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন প্রতি মাসে ৫ থেকে ৮ হাজার করে ।

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করে

মোবাইল দিয়ে ফ্রিল্যান্সিং করে টাকা ইনকাম করা অনেক ধাপ বা পদ্ধতি রয়েছে । আমরা জানি যে, ফ্রিল্যান্সিং মানে একটি মুক্ত পেশা অর্থাৎ এখানে ধরাবান্ধা কোন অফিস নেই বা নির্দিষ্ট কোন সময় নেই । আপনি আপনার হাতে থাকা মোবাইল দিয়ে কন্টেন্ট লিখে, ভিডিও তৈরি করে, ক্যাপচা কোড সমাধান করে বা গেমস খেলে বিভিন্ন উপায়ে টাকা ইনকাম করতে পারবেন । এবং তা এডসেন্স মনিটাইজেশন, স্পনসর এবং বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট রিসিভ করতে পারবেন ।

মোবাইল দিয়ে আউটসোর্সিং

আউটসোর্সিং এবং ফ্রিল্যান্সিং একই সূত্রে গাঁথা ।  অর্থাৎ আপনি মোবাইল ফোন দিয়ে সহজে আউটসোর্সিং করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন । যেখানে অনেকগুলো বিদেশী বায়ার থাকবে । তাদের সাথে ডিল করে কাজ নিতে হবে এবং তা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সম্পন্ন করে তাদেরকে জমা দিতে হবে । এর মাধ্যমে আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

ফটোগ্রাফ বা ভিডিও বিক্রি করে

আপনার কাছে যে মোবাইল ফোনটি রয়েছে তা কিন্তু অনেক শক্তিশালী । কেননা আপনি চাইলে ফোন দ্বারা অনেক সুন্দর সুন্দর ফটো তুলতে এবং ভিডিও করতে পারবেন । আর এই উক্ত ফটোগ্রাফ ও ভিডিও বিভিন্ন অনলাইন প্লাটফর্ম এ বিক্রি করে আয় করতে পারবেন । এমন অনেক অনলাইন ওয়েবসাইট রয়েছে । যারা আপনার ফটো এবং ভিডিও ক্রয় করে এছাড়াও এমন ওয়েবসাইট রয়েছে । যেখানে আপনি আপনার ফটো এবং ভিডিও আপলোড করবেন একটি নিজস্ব একাউন্ট খোলার মাধ্যমে । সেখানে আপনার উক্ত ফটো এবং ভিডিও অন্যদের ভালো লাগলে আপনাকে ডোনেশন করতে পারে ।

অনলাইন টিউশন করে

২০২২ সালে এসে লেখাপড়ার জন্য অনলাইন প্লাটফর্ম সবথেকে জনপ্রিয় এবং সর্বস্তরের জন্য সহজ একটি মাধ্যম । যে মাধ্যমকে ব্যবহার করে আপনি সহজেই টাকা ইনকাম করতে পারবেন । যেমন ধরুন আপনি অনলাইনে টিউশন মুলক ভিডিও করে ছাড়তে পারেন এবং টিউশন এর উপর কোর্স করে সেটিও বিক্রি করতে পারবেন এই অনলাইন প্লাটফর্ম কে ব্যবহার করে আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে ।

ফেসবুক ই-কমার্স দ্বারা

ফেসবুক ই-কমার্স এর মাধ্যমে টাকা আয় করতে হলে আপনাকে যে সকল শর্তাবলী জানতে হবে । এবং যা করতে হবে তার বিস্তারিত তথ্য এখন আমরা আপনাদেরকে দিব । প্রথমেই এজন্য আপনাকে ফেসবুকে একটি পেজ খুলতে হবে । এরপর আপনার মোবাইল দিয়ে ভিডিও তৈরি করতে হবে । যা আপনার উক্ত পেইজ এ আপলোড করতে হবে । এবার তার প্রমশান চালাতে হবে । আপনার ভিউয়ারস বাড়াতে হবে ফেসবুকের শর্ত অনুসারে মনিটাইজেশন করার শর্তাবলী হচ্ছে । ছয় মাসে ৬ লক্ষ্য মিনিট ওয়াচ টাইম এবং ১০ হাজার ফলোয়ার ও পাঁচটি অ্যাক্টিভা ভিডিও থাকতে হবে । তবেই আপনি ফেসবুক মনিটাইজেশন করতে পারবেন । এছাড়াও আপনি ফেসবুকে ই-কমার্স এর দ্বারা ব্যবসা করে টাকা আয় করতে পারবেন । যেমন ধরুন আপনার কোন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পেজ খুলবেন এবং তাতে আপনার প্রোডাক্ট গুলো সেল করবেন ।

রিসেলিং ব্যবসা করে

ধরুন আপনি কোন প্রোডাক্ট ক্রয় করেছেন এবং তা পুনরায় বিক্রি করবেন এটাকে বলে রিসেলিং ব্যবসা । যা আপনি খুব সহজেই করতে পারবেন আপনার মোবাইল ফোন দিয়ে । এর জন্য bikroy.com, ekhanei.com, OLX এ ধরনের ওয়েবসাইটে আপনার একটি একাউন্ট থাকতে হবে সেখানে আপনি আপনার প্রোডাক্টগুলো রিসেলিং করতে পারবেন ।

ইন্সটাগ্রাম থেকে

আমরা জানি যে ইনস্টাগ্রামে একটি ছবি শেয়ার করা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম । তবে তা বর্তমানে শুধুমাত্র ছবি শেয়ার করার কাজে ব্যবহার করা হয় না । আপনি চাইলে ইনস্টাগ্রাম কে আয় করার মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন । এর জন্য প্রথমেই আপনাকে সুন্দর একটি নাম ছবি এবং যাবতীয় তথ্য দিয়ে প্রোফাইল খুলতে হবে । এবং নির্দিষ্ট একটি ব্যবসা কে টার্গেট করে আপনার প্রমোশন চালিয়ে যেতে হবে আপনি যে ধরনের ব্যবসা করতে চান উক্ত ধরনের অন্যান্য ইনস্টাগ্রাম আইডি কেউ ফলো করবেন । নিয়মিত আপনার পোস্টগুলো ইনস্টাগ্রামে আপডেট করতে থাকবেন । এতে করে আপনি ইনস্টাগ্রামে ভিডিও অনলাইন মার্কেটিং অ্যামাজন অ্যাফিলিয়েট করে আয় করতে পারবেন ।

মাইক্রোওয়ার্ক সাইট থেকে

অনেক microsoft-এর সাইট রয়েছে যেখানে তারা তাদের কাজের জন্য অনলাইনে অফার করে থাকে বা কর্মী নিয়োগ করে । আপনি চাইলে এ কাজে সুযোগটি আপনিও নিতে পারেন যাতে করে আপনার মোবাইল দিয়ে সব সাইট থেকে কাজ করে আয় করতে পারেন ।

আর্টিকেল লিখে টাকা আয়

দিনদিন গুগলে ওয়েবসাইট এর সংখ্যা বাড়তে আছে এবং বিভিন্ন নতুন তথ্য উপযোগ সৃষ্টি হচ্ছে যার কারণে নতুন নতুন আর্টিকেল লিখার প্রয়োজন পড়ছে ওয়েব ব্লগারদের । এতে করে ব্লগাররা তাদের ওয়েবসাইটে নতুন, নতুন আর্টিকেল সংযোজন করছে আর্টিকেল কিনার মাধ্যমে । তাই এখানে আপনি কোন একটি ওয়েবসাইটের আর্টিকেল লিখে টাকা আয় করতে পারবেন । যা করা যাবে আপনার হাতে থাকা স্মার্ট ফোন দিয়েই । সাধারণত ওয়েবসাইটের নিস, পোষ্টের উপর আর্টিকেল লিখার টাকা পেমেন্ট দেওয়া হয়ে থাকে । যেখানে খুব সহজেই ১০০০ ওয়াট লিখে আপনি এক থেকে দুই হাজার টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

Fiverr ওয়েবসাইটে কাজ করে আয়

ফাইবার যা আমেরিকাভিত্তিক অনলাইনে কাজ করার একটি ওয়েবসাইট । যেখানে আপনি আপনার নিজস্ব দক্ষতার উপর একটি অ্যাকাউন্ট খুলে কাজ করে টাকা আয় করতে পারেন । যেমন ধরুন আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং মার্কেটিং এক্সপার্ট । এখন আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর আপনার প্রোফাইল খুলবেন । এবং যারা ডিজিটাল মার্কেটিং এর উপর কাজ করে নিতে চাই । সে সকল বায়ারদের থেকে বিড করে কাজ নিবেন । এতে করে আপনি কাজ পেলে খুব সহজেই ফাইবার ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কাজ করে টাকা ইনকাম করতে পারবেন ।

Wpwork ওয়েবসাইটে কাজ করে আয়

ফাইবারের মত আপু আর কয়েকটি ফ্রিল্যান্সিং করার ওয়েবসাইট । যেখানে নির্দিষ্ট দক্ষতার উপর ভাইয়েরা তাদের কাজ করার জন্য ফ্রিল্যান্সারদের হায়ার করে থাকে । এতে করে আপনি যদি আপনাকে কোন একটি নির্দিষ্ট টপিকে এক্সপার্ট হয়ে থাকেন । তবে সেখানে কাজের কোন অভাব নেই । এখানে আপনার একটি প্রোফাইল খুলতে হবে এবং আপনার দক্ষতা সম্পর্কে বিস্তারিত লিখতে হবে । এতে করে বায়াররা আপনার পারফরমেন্সের উপর সন্তুষ্ট হলে আপনাকে কাজ দিবে যা থেকে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন ।

যা কিছু শিখলাম

পুরো পোস্টটি জুড়ে উপরের অংশে আমরা শিখলাম ঘরে বসে মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার সঠিক উপায় 2022 । উক্ত উপায়গুলো অনুসরণ করে আপনি খুব সহজেই আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোনে ইন্টারনেট সংযোগের মাধ্যমে ঘরে বসে হাজার হাজার টাকা আয় করতে পারবেন । তবে তার জন্য অবশ্যই উক্ত কাজের উপর আপনাকে দক্ষতা অর্জন করতে হবে । কারন সুদক্ষ ফ্রিল্যান্সার বা ওয়ার্কার ছাড়া আপনাকে কেউ কোনো কাজ দিবে না । তাই সবার প্রথমে আপনাকে দক্ষতা অর্জন করতে হবে । আশা করছি উক্ত পোস্টটি আপনাদের সকলকে অনলাইন হতে আয় করার সঠিক উপায় সম্পর্কে জানতে সাহায্য করবে । একই সাথে অনলাইন মার্কেটে আপনার ক্যারিয়ার গঠনে সহায়তা করবে । সকলকে অশেষ, অশেষ ধন্যবাদ পুরো পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়ার জন্য ও আমাদের ওয়েবসাইট ভিজিট করার জন্য ।

EducationResultBD

I hope you are enjoying this article. Thanks for visiting this website & stay connected with us.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button