Info

[আজকের খবর] মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ২০২২ জানা গেল [শ্রমবাজার বিস্তারিত]

[আজকের খবর] মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ২০২২ [মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারের বিস্তারিত তথ্য]

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে

[আজকের খবর] মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ২০২২ জানা গেল, [শ্রমবাজার বিস্তারিত] তথ্য জানুন এখানে। বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম, আসসালামু আলাইকুম সকলের সুন্দর জীবন ও সুস্বাস্থ্য কামনা শুরু করে শুরু করছি এই আর্টিকেলটি। যেখানে আজকে আমরা ভিন্নধর্মী একটি টপিক নিয়ে আলোচনা করতে চলেছি আপনাদের সাথে। আর তা হচ্ছে মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে? আপনাদের মাঝে যারা ওয়ার্কপারমিট নিয়ে কাজের জন্য মালয়েশিয়া যেতে চান তাদের মনে রাখুন এই একটি প্রশ্নই চলছে। তাই আপনাদের সেই প্রশ্নের যথার্থ উত্তর নিয়ে আমরা উপস্থিত হয়েছি উক্ত আর্টিকেলে। যেখানে জানবো মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে, মালয়েশিয়া ভিসার দাম কত? মালয়েশিয়া যেতে যেসব যোগ্যতার প্রয়োজন ও মালয়েশিয়া কাজের বেতন সহ যাবতীয় তথ্যাবলী। তাই আপনারা যারা উক্ত প্রশ্নের মুখোমুখি এবং উত্তর গুলো জানতে চান। তারা দয়া করে পুরো আর্টিকেলটি মনোযোগ সহকারে দেখুন এবং পড়ুন।

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে ২০২২

আপনারা সকলে অবগত আছেন যে বর্তমানে মালয়েশিয়া শ্রমবাজার বন্ধ রয়েছে বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য। ঠিক কবে নাগাদ আবার মালয়েশিয়ার ভিসা খুলবে সে ব্যাপারে আমরা কেউ নিশ্চিত নয় এখন পর্যন্ত। কারন বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার সরকারের মাঝে নতুন করে ভিসা চালু হওয়ার দ্বিপাক্ষিক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়নি। যার কারণে সঠিকভাবে বলা যাচ্ছেনা মালয়েশিয়ার ভিসা কবে খুলবে বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা ২০২২ কবে চালু বা শুরু হবে?

কাজের জন্য যেকোনো দেশে যাবার জন্য যে ভিসার প্রয়োজন হয় তাকেই কলিং ভিসা বলা হয়। আর এই কলিং ভিসা বর্তমানে বন্ধ রয়েছে মালয়েশিয়া যাবার জন্য বাংলাদেশে শ্রমিকদের। ঠিক কবে নাগাদ মালয়েশিয়ার কলিং ভিসা চালু হবে এবার শুরু হবে? এ বিষয়ে বাংলাদেশের শ্রম মন্ত্রণালয় জানাই যে, মালয়েশিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব এর সাথে আলোচনা করা হবে। দু’দেশের আলোচনার প্রেক্ষিতে উঠে আসবে মালয়েশিয়ার কলিং ভিসা ঠিক কবে নাগাদ আবারও চালু করা হবে।

মালয়েশিয়া কলিং ভিসা

আর দেখুন ❏ মালয়েশিয়ার ১ টাকা বাংলাদেশের কত টাকা | রিংগিত টু টাকা

মালয়েশিয়া শ্রমিক নিয়োগ 2022 আজকের খবর

বর্তমানে বাংলাদেশের শ্রমিক বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমাচ্ছে তাদের কাজের সন্ধানে এবং ভালো পরিবেশের জন্য। এমত অবস্থায় মালয়েশিয়া একটি উন্নত দেশ বা রাষ্ট্র যা বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য সুবিধাজনক। কিন্তু বর্তমানে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার বাংলাদেশিদের জন্য একদম বন্ধ রয়েছে। যার কারণ মালয়েশিয়াতে ইতিমধ্যেই অনেক অবৈধ শ্রমিক রয়েছে। যে কারণে নতুনভাবে আর কোনো শ্রমিক তারা গ্রহণ করে না। মালয়েশিয়ার তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ অবৈধ শ্রমিকের জন্য বাংলাদেশের শ্রমবাজার অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে। এবং একই সাথে যারা অবৈধভাবে মালয়েশিয়াতে অবস্থান করছিল তাদের আইনের আওতায় এনে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে বা হচ্ছে। তাই বলা যাচ্ছে নতুন কোন চুক্তি স্বাক্ষরিত না হওয়া পর্যন্ত মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিক নেয়া বা গ্রহণ করা হবে না।

মালয়েশিয়া শ্রমিক নিয়োগ আজকের খবর

যেভাবে বাংলাদেশে থেকে মালয়েশিয়া শ্রমিক নেওয়া হবে

এক দেশ থেকে আরেক দেশে শ্রমিক নেওয়া এবং পাঠানোর প্রক্রিয়া হয় দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরের মাধ্যমে। ঠিক তেমন ভাবেই মালয়েশিয়া এবং বাংলাদেশের মধ্যে একটা সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হবে। যেটাকে বলা হয় g2g প্রক্রিয়া। এই প্রক্রিয়া g2g ভিত্তিতে মালয়েশিয়া বাংলাদেশ থেকে শ্রমিক নিবে।

মালয়েশিয়া যেতে যেসব যোগ্যতা প্রয়োজন

আপনারা সকলে অবগত আছেন যে, ইউরোপের বিভিন্ন দেশে যেতে বিভিন্ন ধরনের যোগ্যতার প্রয়োজন হয়ে থাকে। ঠিক তেমনি ভাবে মালয়েশিয়া যেতে আপনার কিছু সাধারন যোগ্যতার প্রয়োজন। তবে এখানে জটিল বা কঠিন কোনো যোগ্যতার প্রয়োজন নেই। সাধারণত মালয়েশিয়ায় যেতে যোগ্যতা হিসবে পঞ্চম পাশ হলেই হয়। এছাড়াও আপনি যে কোম্পানিতে যে, কাজের ভিত্তিতে যাবেন। সেই কাজের উপর বাস্তব কিছু অভিজ্ঞতার প্রয়োজন হতে পারে।

মালয়েশিয়া যেতে কত বছর বয়স লাগে ২০২২

সবকিছুতেই বয়স একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে, মালয়েশিয়া যেতেও বয়সের একটি নির্দিষ্ট ধাপ রয়েছে। মালয়েশিয়ায় যেতে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার সরকার বয়স যাবে নির্ধারণ করেছে ২১ বছর। অর্থাৎ আপনার বয়স জাতীয় পরিচয় পত্র অনুযায়ী ২১ বছর হলে আপনি মালয়েশিয়া যেতে পারবেন।

মালয়েশিয়ায় কি, কি কাজের সুযোগ রয়েছে?

মালয়েশিয়া যাবার আগে আপনার জানা প্রয়োজন সেখানের শ্রমবাজার সম্পর্কে। অর্থাৎ সেখানে কি,কি কাজের সুযোগ রয়েছে এবং আপনি কি, কি কাজ করতে পারবেন বা জানেন। এসম্পর্কে আগেই ধারণা লাভ করা এবং সেখানে গিয়ে ভালোভাবে কাজ করতে পারা।

  1. কৃষি ক্ষেত্রঃ মালয়েশিয়া কৃষিক্ষেত্রে অনেক এগিয়ে রয়েছে, বিশেষ করে সেখানে পাম চাষ হয় প্রচুর যার কারণে অনেক শ্রমিক নিয়োগ দিতে হয়।
  2. নির্মাণ শ্রমিকঃ মালয়েশিয়া শিল্পনির্ভর উন্নত একটি রাষ্ট্র যেখানে নিজেদের সহ অন্যান্য দেশের বিভিন্ন অফিস রয়েছে। যার কারণে তাদের নির্মাণশৈলীর এবং বড়, বড় বিল্ডিং নির্মাণ করতে হয়। আর এতে করেই অনেক শ্রমিক নির্মাণ কাজে নিয়োগ প্রদান করে থাকে।
  3. বিভিন্ন সেবামূলক কর্ম ক্ষেত্রঃ মালয়েশিয়ার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের সেবামূলক কর্মক্ষেত্র যেগুলো তেও প্রচুর পরিমাণে শ্রমিক নিয়োগ করা হয় এগুলো তদারকি করার জন্য।

মালয়েশিয়ায় কাজের বেতন কত?

বেকারত্ব দূরীকরণে ও কিছু উপায় তথা ইনকামের আশায় মানুষ পাড়ি জমায় প্রবাসে। আর তাই মালয়েশিয়াসহ আপনি যেকোন দেশে যান না কেন জানতে হবে সেখানকার কাজের বেতন কত বা কেমন। এতে করে আপনি আগে থেকেই বেতন সম্পর্কে ধারণা লাভ করতে পারবেন। বাংলাদেশ সরকারের শ্রম মন্ত্রণালয় ও প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয় মালয়েশিয়া সরকারের সাথে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। যেটি চালু হবার পর মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী শ্রমিকদের জন্য সর্বনিম্ন বেতন হবে ২৪ হাজার টাকা। এছাড়াও কোম্পানি ও কাজের ধরণ ভিত্তিতে এ বেতন ৫০, ৬০, ৭০ বা লাখের উপরে হতে পারে।

মালয়েশিয়ার ভিসা কত দিনের জন্য হয়?

সবকিছুরই একটি নির্দিষ্ট মেয়াদ থাকে সে ক্ষেত্রে মালয়েশিয়া ভিসার নির্দিষ্ট মেয়াদ রয়েছে। মালয়েশিয়ার ভিসা দুই বছরের জন্য হয়ে থাকে। যার মেয়াদ পরবর্তীতে আপনি বাড়িয়ে নিতে পারবেন। এছাড়াও বিভিন্ন কোম্পানির ভিত্তিতে মালয়েশিয়ার ভিসার মেয়াদ কম বা বেশি হতে পারে এবং পুননবায়নের সুযোগ থাকে।

মালয়েশিয়ার ভিসার দাম কত?

বাংলাদেশ থেকে দেশের বাইরে আপনি যে দেশেই যেতে চান না কেন কাজের জন্য অথবা পড়াশোনা বা ভ্রমণের জন্যে এতে করে ভিসার প্রয়োজন। কারণ বিশেষ ছাড়া আপনি মালয়েশিয়াসহ অন্য কোন দেশে যেতে পারবেন না। ভিসার একটি বৈধ পন্থা যে কোন দেশে যাবার জন্য। তাই আপনি যদি মালয়েশিয়া যেতে চান, তাহলে আবশ্যিকভাবে আপনাকে জানতে হবে মালয়েশিয়ার ভিসার দাম কত? সরকারিভাবে মালয়েশিয়া ভিসার দাম ৩০ হাজার টাকা। তবে বর্তমানে বেসরকারি ও অবৈধ পন্থায় মালয়েশিয়া ভিসার দাম আকাশছোঁয়া।

মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে 2022

মানুষরা যাবার জন্য প্রথমে আপনার প্রয়োজন বাংলাদেশের পাসপোর্ট এরপর যেটি আবশ্যিকভাবে প্রয়োজন সেটি হল মালয়শিয়ান ভিসা। এখন আসা যাক বাংলাদেশি পাসপোর্ট করতে কত টাকার প্রয়োজন? বাংলাদেশের পাঁচ বছর বা দশ বছর মেয়াদি পাসপোর্ট করতে ৬ থেকে ৭ হাজার টাকার প্রয়োজন। অপরদিকে সরকারিভাবে মালয়েশিয়ার ভিসার দাম ৩০ হাজার টাকা। এর ভিত্তিতে বলা যায় মালয়েশিয়া যেতে ৪০ থেকে ৫০ হাজার টাকা প্রয়োজন। তবে বর্তমানে বেসরকারি ও অবৈধ পন্থায় দালাল ধরে মালয়েশিয়া যেতে ৩ থেকে ৪ লাখ টাকার প্রয়োজন।

শেষের কথা

অনেকদিনের লালিত স্বপ্ন আশা পূরণ করতে আপনারা যারা মানুষের মতো প্রবাসে পাড়ি জমান তাদের উদ্দেশ্যে শেষে অংশে শেষে আমরা একটি কথাই বলবো। আর তা হচ্ছে সরকারিভাবে আপনি মালয়েশিয়া যাবেন, এর জন্য কোন দালাল বা অবৈধ পথ বাঁচবেন না। কারণ এতে করে আপনার যেমন প্রয়োজন বহুৎ টাকার প্রয়োজন। ঠিক তেমনিভাবে আপনার কষ্টার্জিত, জমি বেচা বা ঋণ করা টাকা গুলো অনেক সময় জলে ভেসে যায়। তাই মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে সরকারিভাবে তার জন্য অপেক্ষা করুন এবং বৈধ পন্থায় মালয়েশিয়ায় গিয়ে দেশের জন্য রেমিট্যান্স ইনকাম করুন। একই সাথে দেশ এবং নিজের উন্নতি ঘটানো, এ প্রত্যাশায় আজ এখানেই শেষ করছি আল্লাহ হাফেজ।

EducationResultBD

I hope you are enjoying this article. Thanks for visiting this website & stay connected with us.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button